সোমবার, ১৭-ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:৪২ অপরাহ্ন
  • রাজনীতি
  • »
  • ধানের শীষের ২৭৬ প্রার্থী চূড়ান্ত: বিএনপি ২১৬, জামায়াত ২৫, ঐক্যফ্রন্ট ১৯

ধানের শীষের ২৭৬ প্রার্থী চূড়ান্ত: বিএনপি ২১৬, জামায়াত ২৫, ঐক্যফ্রন্ট ১৯

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:৩৮ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা : ইতোমধ্যে ২৭৬ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এসব প্রার্থীদের চিঠি দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে বিএনপির এককভাবে ২১৬ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। জামায়াতে ইসলামীকে দেয়া হয়েছে ২৫টি আসন, এর মধ্যে একটিতে আইনি জটিলতায় পড়েছে দলটির প্রার্থী। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ইতোমধ্যে ১৯টিতে ধানের শীর্ষের প্রতীকের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। এর মধ্যে গণফোরাম ৬, জেএসডি ৫, নাগরিক ঐক্য ৫, ঐক্যপ্রক্রিয়া ১, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ২। অপরদিকে ২০ দলীয় জোটের অপর শরীক বিজেপি: ঢাকা-১৭ আসন, এনপিপি: নড়াইল-২ আসন, পিপিবি: রংপুর-৩ আসন, কল্যাণ পার্টি: চট্টগ্রাম- ৫ আসন, এলডিপি: চট্টগ্রামের দুইটিসহ ৫টি, খেলাফত মজলিশ: ২টি আসন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম: ৩টি আসন ও জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর):  দুইটি আসনে ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। শনিবার বিএনপির গুলশান কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বাকী ২৪ আসনের বিষয়ে রোববার সকালেই জানা যাবে। 

শুক্রবার (০৭ ডিসেম্বর) ২০৬ প্রার্থীর চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকা প্রকাশের পর শনিবার (০৮ ডিসেম্বর) আরও দশজনের নাম প্রকাশ করেছে বিএনপি।

দলটির এ ১০ জনের চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকায় রয়েছেন- গাইবান্ধা-২ আসনে আবদুর রশীদ সরকার, পটুয়াখালী-২ এ শহীদুল আলম তালুকদার, নারায়ণগঞ্জ-১ কাজী মুনীর, ময়মনসিংহ-১ আলী আজগর, কুমিল্লা-৬ আমিন উর রশীদ ইয়াসিন, জামালপুর-১ রশীদুজ্জামান মিল্লাত, সিলেট-১ খন্দকার আবদুল মুক্তাদির, নেত্রকোনা-৫ আবু তাহের তালুকদার, চাঁদপুর-৩ শেখ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এবং বরগুনা-২ নির্বাচনী এলাকায় খন্দকার মাহবুব হোসেন।

এরআগে গতকাল ২০৬ আসনে চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে বিএনপি। 
শুক্রবার (০৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তালিকা পাঠ করে শোনান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

২০৬ আসনে বিএনপির চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা
চট্টগ্রাম বিভাগ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনে একরামুজ্জামান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল, কুমিল্লা-১ ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, কুমিল্লা-২ ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, কুমিল্লা-৩ কাজী মজিবুল হক, কুমিল্লা-৮ জাকারিয়া তাহের সুমন, কুমিল্লা-৯ আনোয়ারুল আজিম, চাঁদপুর-১ মোশাররফ হোসেন, চাঁদপুর-২ ডা. জালাল উদ্দিন, চাঁদপুর-৪ আবদুল হান্নান, চাঁদপুর-৫ মমিনুল হক, ফেনী-২ জয়নাল আবেদীন, ফেনী-৩ আকবর হোসেন, নোয়াখালী-১ ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, নোয়াখালী-২ জয়নুল আবদিন ফারুক, নোয়াখালী-৩ বরকত উল্লাহ বুলু, নোয়াখালী-৪ মো. শাহজাহান, নোয়াখালী-৫ ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, নোয়াখালী-৬ ফজলুল আজিম, লক্ষ্মীপুর-২ আবুল খায়ের ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর-৩ শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, চট্টগ্রাম-১ নুরুল আমিন, চট্টগ্রাম-২ আজিবুল্লাহ বাহার, চট্টগ্রাম-৪ ইসহাক চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৬ জসিম উদ্দিন সিকদার, চট্টগ্রাম-৭ কুতুব উদ্দিন বাহার, চট্টগ্রাম-৯ ডা. শাহাদাত হোসেন, চট্টগ্রাম-১০ আব্দুল্লাহ আল নোমান, চট্টগ্রাম-১১ আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১২ এনামুল হক, চট্টগ্রাম-১৩ সারোয়ার জামাল নিজাম, চট্টগ্রাম-১৬ জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, কক্সাবাজার-১ হাসিনা আহমেদ, কক্সাবাজার-৩ লুৎফর রহমান কাজল, কক্সাবাজার-৪ শাহজাহান চৌধুরী, খাগড়াছড়ি- শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া, রাঙামাটি- মনি স্বপন দেওয়ান ও বান্দরবান- সাচিং প্রু বিএনপির মনোয়নয়ন পেয়েছেন।

ঢাকা বিভাগ
কিশোরগঞ্জ-১ রেজাউল করিম খান চুন্নু, কিশোরগঞ্জ-২ মেজর (অব.) আক্তারুজ্জামান, কিশোরগঞ্জ-৪ ফজলুর রহমান, কিশোরগঞ্জ-৫ শেখ মুজিবর রহমান ইকবাল, কিশোরগঞ্জ-৬ শরীফুল আলম, টাঙ্গাইল-১ শহীদুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-২ সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, টাঙ্গাইল-৫ মাহমুদুল হাসান, টাঙ্গাইল-৬ গৌতম চক্রবর্তী, টাঙ্গাইল-৭ আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, মানিকগঞ্জ-১ এস এ জিন্নাহ কবির, মানিকগঞ্জ-২ মাঈনুল ইসলাম খান, মুন্সিগঞ্জ-১ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, মুন্সিগঞ্জ-২ মিজানুর রহমান সিনহা, মুন্সিগঞ্জ-৩ আবদুল হাই, ঢাকা-২ ইরফান ইবনে আমান, ঢাকা-৩ গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ঢাকা-৪ সালাহউদ্দিন আহম্মেদ, ঢাকা-৮ মির্জা আব্বাস, ঢাকা-১০ আবদুল মান্নান, ঢাকা-১১ শামীম আরা বেগম, ঢাকা-১২ সাইফুল আলম নীরব, ঢাকা-১৩ আবদুস সালাম, ঢাকা-১৬ আহসান উল্লাহ হাসান, ঢাকা-১৯ দেওয়ান মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন ও ঢাকা-২০ তমিজ উদ্দিন।

গাজীপুর-১ আসনে চৌধুরী তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী, গাজীপুর-২ সালাহউদ্দিন সরকার, গাজীপুর-৪ শাহ রিয়াজুল হান্নান, গাজীপুর-৫ ফজলুল হক মিলন, নরসিংদী-১ খায়রুল কবির খোকন, নরসিংদী-২ ড. মঈন খান, নরসিংদী-৪ সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল, নারায়ণগঞ্জ-২ নজরুল ইসলাম আজাদ, রাজবাড়ি-১ আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়াম, রাজবাড়ি-২ নাসিরুল হক সাবু, ফরিদপুর-১ শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর, ফরিদপুর-২ শামা ওবায়েদ, ফরিদপুর-৩ চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, ফরিদপুর-৪ খন্দকার ইকবাল হোসেন, গোপালগঞ্জ-১ এফ ই সরফুজ্জামান, গোপালগঞ্জ-২ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, গোপালগঞ্জ-৩ আফজাল হোসেন, মাদারীপুর-১ সাজ্জাদ হোসেন সিদ্দিকী, মাদারীপুর-২ মিলটন বৈদ্য, মাদারীপুর-৩ আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, শরীয়তপুর-২ শফিকুর রহমান কিরণ ও শরীয়তপুর-৩ মিয়া নুরুদ্দিন আহমেদ অপু।

রংপুর বিভাগ
পঞ্চগড়-১ আসনে ব্যারিস্টার নওশাদ জমির, পঞ্চগড়-২ আসনে ফরহাদ হোসেন আজাদ, ঠাকুরগাঁও-১ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ঠাকুরগাঁও-৩ জাহিদুর রহমান, দিনাজপুর-২ মোহাম্মদ সাদিক রিয়াজ, দিনাজপুর-৪ আক্তারুজ্জামান মিয়া, দিনাজপুর-৫ এজেডএম রেজোয়ানুল হক, নীলফামারী-১ রফিকুল ইসলাম, লালমনিরহাট-১ হাসান রাজীব প্রধান, লালমনিরহাট-২ রোকন উদ্দিন বাবুল, লালমনিরহাট-৩ আসাদুল হাবিব দুলু, রংপুর-২ মোহাম্মদ আলী সরকার, রংপুর-৩ রিটা রহমান, রংপুর-৪ এমদাদুল হক ভরসা, রংপুর-৬ সাইফুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম-১ সাইফুর রহমান রানা, কুড়িগ্রাম-৩ তাসভীর-উল ইসলাম, কুড়িগ্রাম-৪ মোহাম্মদ আজিজুর রহমান, গাইবান্ধা-৪ ফারুক কবির আহমেদ, গাইবান্ধা-৫ ফারুক আলম সরকার, জয়পুরহাট-১ ফজলুর রহমান ও জয়পুরহাট-২ এইএম খলিলুর রহমান।

খুলনা বিভাগ
মেহেরপুর-১ আসনে মাসুদ অরুণ, মেহেরপুর-২ আসনে জাভেদ মাসুদ মিলটন, কুষ্টিয়া-১ আসনে রেজা আহমেদ বাচ্চু মোল্লা, কুষ্টিয়া-৩ জাকির হোসেন সরকার, কুষ্টিয়া-৪ মেহেদি আহমেদ রুমী, চুয়াডাঙ্গা-১ মো. শরীফুজ্জামান শরীফ, চুয়াডাঙ্গা-২ মাহমুদ হাসান খান (বাবু খান), ঝিনাইদহ-২ আবদুল মজিদ, ঝিনাইদহ-৪ সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, যশোর-১ মফিকুল হাসান তৃপ্তি, যশোর-৩ অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, যশোর-৪ টি এস আইয়ুব, যশোর-৬ আবুল হোসেন আজাদ, মাগুরা-১ মনোয়ার হোসেন, মাগুরা-২ নিতাই রায় চৌধুরী, নড়াইল-১ সাজ্জাদ হোসেন, বাগেরহাট-১ শেখ মাসুদ রানা, বাগেরহাট-২ এম এ সালাম, খুলনা-১ আমির এজাজ খান, খুলনা-২ নজরুল ইসলাম মঞ্জু, খুলনা-৩ রকিবুল ইসলাম বকুল, খুলনা-৪ আজিজুল বারী হেলাল ও সাতক্ষীরা-১ হাবিবুল ইসলাম হাবিব।

রাজশাহী বিভাগ
বগুড়া-১ আসনে গাজী রফিকুল ইসলাম, বগুড়া-৪ মোশাররফ হোসেন, বগুড়া-৫ গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ মোহাম্মদ শাহজাহান মিয়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ হারুনুর রশীদ, নওগাঁ-১ মোস্তাফিজুর রহমান, নওগাঁ-২ শামসুজ্জোহা খান, নওগাঁ-৩ পারভেজ আরেফিন সিদ্দিকী, নওগাঁ-৪ শামসুল আলম প্রামাণিক, নওগাঁ-৫ জাহিদুল ইসলাম ধলু, নওগাঁ-৬ আলমগীর কবির, রাজশাহী- ব্যারিস্টার আমিনুল হক, রাজশাহী-২ মিজানুর রহমান মিনু, রাজশাহী-৩ শফিকুল হক মিলন, রাজশাহী-৪ আবু হেনা, রাজশাহী-৫ নজরুল ইসলাম মন্ডল, রাজশাহী-৬ আবু সাঈদ চাঁদ, নাটোর-১ কামরুন্নাহার, নাটোর-২ সাবিনা ইয়াসিমন ছবি, নাটোর-৩ দাউদার মাহমুদ, নাটোর-৪ আবদুল আজিজ, সিরাজগঞ্জ-১ রম্নমানা মোরশেদ কনক চাঁপা, সিরাজগঞ্জ-৩ আবদুল মান্নান তালুকদার, সিরাজগঞ্জ-৫ আমিরুল ইসলাম খান আলীম, সিরাজগঞ্জ-৬ কামরুদ্দিন ইয়াহিয়া খান মজলিস, পাবনা-২ সেলিম রেজা হাবিব, পাবনা-৩ আনোয়ারুল ইসলাম ও পাবনা-৪ হাবিবুর রহমান হাবিব।

বরিশাল বিভাগ
পটুয়াখালী-১ আলতাফ হোসেন চৌধুরী, পটুয়াখালী-৩ গোলাম মাওলা রনি, পটুয়াখালী-৪ এবিএম মোশাররফ হোসেন, ভোলা-২ হাফিজ ইব্রাহিম, ভোলা-৩ মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, ভোলা-৪ নাজিম উদ্দিন আলম, বরিশাল-১ জহির উদ্দিন স্বপন, বরিশাল-২ সরফুদ্দিন সান্টু, বরিশাল-৩ জয়নুল আবেদীন, বরিশাল-৫ মজিবর রহমান সরোয়ার, বরিশাল-৬ আবুল হোসেন খান, ঝালকাঠি-১ ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, ঝালকাঠি-২ জেবা আমিন খান, পিরোজপুর-৩ রুহুল আমিন দুলাল।

ময়মনসিংহ বিভাগ
জামালপুর-২ সুলতান মাহমুদ বাবু, জামালপুর-৩ মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, জামালপুর-৪ ফরিদুল করিব তালুকদার শামীম, জামালপুর-৫ শাহ ওয়ারেস আলী মামুন, শেরপুর-১ ডা. সানসিলা জেবরিন, শেরপুর-২ মোখলেসুর রহমান রিপন, শেরপুর-৩ মাহমুদুল হক রুবেল, ময়মনসিংহ-২ শাহ শহীদ সরোয়ার, ময়মনসিংহ -৩ ইঞ্জিনিয়ার ইকবাল হোসেন, ময়মনসিংহ-৫ জাকির হোসেন, ময়মনসিংহ-৬ শামস উদ্দিন আহমেদ, ময়মনসিংহ-৭ জয়নাল আবেদীন, ময়মনসিংহ-৯ খুররম চৌধুরী, ময়মনসিহং-১১ ফখর উদ্দিন আহমেদ বাচ্চু, নেত্রকোনা-১ ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, নেত্রকোনা-২ ডা. আনোয়ারুল হক, নেত্রকোনা-৩ রফিকুল ইসলাম হিলালি ও নেত্রকোনা-৪ আসনে তাহমিনা জামান।

সিলেট বিভাগ
সুনামগঞ্জ-১ আসনে নজির হোসেন, সুনামগঞ্জ-২ নাসির চৌধুরী, সুনামগঞ্জ-৪ ফজলুল হক আপসিয়া, সুনামগঞ্জ-৫ মিজানুর রহমান চৌধুরী, সিলেট-৩ শফি আহমেদ চৌধুরী, সিলেট-৪ দিলদার হোসেন সেলিম, মৌলভীবাজার-১ নাসির উদ্দিন আহমেদ, মৌলভীবাজার-৩ নাসের রহমান, মৌলভীবাজার-৪ মজিবুর রহমান চৌধুরী, হবিগঞ্জ-৩ আসনে জি কে গউস।

মোট ২৫ আসনে যারা মনোনয়ন পেয়েছেন যারা
১. ঠাকুরগাঁও-২: মাওলানা আবদুল হাকিম, ২. দিনাজপুর-১: মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ, ৩. দিনাজপুর-৬: মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, ৪. নীলফামারী-২: মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মন্টু, ৫. নীলফামারী-৩: মোহাম্মদ আজিজুল ইসলাম, ৬. রংপুর-৫: অধ্যাপক গোলাম রব্বানী (আইনি জটিলতা রয়েছে), ৭. গাইবান্ধা-১: মাজেদুর রহমান সরকার, ৮. সিরাজগঞ্জ-৪: মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, ৯. পাবনা-৫: মাওলানা ইকবাল হুসাইন, ১০. ঝিনাইদহ-৩: অধ্যাপক মতিয়ার রহমান, ১১. যশোর-২: আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন, ১২. বাগেরহাট-৩: অ্যাডভোকেট আবদুল ওয়াদুদ, ১৩. বাগেরহাট-৪: অধ্যাপক আবদুল আলীম, ১৪. খুলনা-৫: অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, ১৫. খুলনা-৬: মাওলানা আবুল কালাম আযাদ, ১৬. সাতক্ষীরা-২: মুহাদ্দিস আবদুল খালেক, ১৭. সাতক্ষীরা-৩: মুফতি রবিউল বাশার, ১৮. সাতক্ষীরা-৪: গাজী নজরুল ইসলাম, ১৯. পিরোজপুর-১: আলহাজ্ব শামীম সাঈদী, ২০. ঢাকা-১৫: ডা. শফিকুর রহমান, ২১. সিলেট-৫: মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, ২২. সিলেট-৬: মাওলানা হাবিবুর রহমান, ২৩. কুমিল্লা-১১: ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের, ২৪. চট্টগ্রাম ১৫: আ ন ম শামসুল ইসলাম ও ২৫. কক্সবাজার-২: হামিদুর রহমান আযাদ। 

ঐক্যফ্রন্টের ১৯ প্রার্থী যারা
গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু ঢাকা-৭, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী ঢাকা-৬, এএইচএম খালেকুজ্জামান ময়মনসিংহ-৮, রেজা কিবরিয়া হবিগঞ্জ-১, অধ্যাপক আবু সায়িদ পাবনা-১, সুলতান মোহাম্মদ মনসুর মৌলভীবাজার-২ ও মেজর জেনারেল অব. আমসা আমিন কুড়িগ্রাম-২ ধানের মনোনয়ন পেয়েছেন।

নাগরিক ঐক্য পেয়েছে পাঁচটি আসন 
দলটির আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বগুড়া-২, এসএম আকরাম নারায়ণগঞ্জ-৫, শাহ রহমাতুল্লাহ রংপুর-১, মোফাখারুল ইসলাম রংপুর-৬ ও জেএম নুরুল রহমান জাহাঙ্গীর বরিশাল-৪ থেকে ধানের শীষের মনোনয়ন পান।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) পেয়েছে পাঁচটি আসন 
দলের সভাপতি আসম আব্দুর রব লক্ষীপুর- ৪, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন কুমিল্লা-৪, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন ঢাকা-১৮, ড. সাইফুল ইসলাম কিশোরগঞ্জ-৩ ও নুরুল ইসলাম মাল শরীয়তপুর-১ থেকে ধানের শীর্ষ প্রতীক পেয়েছেন। 

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ পেয়েছে দুইটি আসন 
বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় তার মেয়ে ব্যারিস্টার কুড়ি সিদ্দিকী টাঙ্গাইল-৮ আসন থেকে ধানের শীষের প্রার্থী হবেন। অপর আসনটি টাঙ্গাইল-৪। এ আসনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ থেকে দু’জন প্রার্থী আছেন। একজন কাদের সিদ্দিকীর ভাই আজাদ সিদ্দিকী অপরজন ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলী। এদের মধ্যে যেকোনো একজন ধানের শীষ প্রতীক পাবেন। এটা রোববার (০৯ ডিসেম্বর) সিদ্ধান্ত হবে।

২০ দলীয় জোটের অপর শরীকদের আসন:

বিজেপি: ঢাকা-১৭ আসনে আন্দালিব রহমান পার্থ।

এনপিপি: নড়াইল-২ আসনে ফরিদুজ্জামান ফরহাদ।

পিপিবি: রংপুর-৩ আসনে রিটা রহমান।

কল্যাণ পার্টি: চট্টগ্রাম- ৫ আসনে কল্যাণ পার্টির সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম।

এলডিপি: চট্টগ্রাম- ১৪ আসনে এলডিপির অলি আহমেদ, চট্টগ্রাম-৭ আসনে মো. নুরুল আলম, কুমিল্লা-৭ আসনে রেদোয়ান আহমেদ, লক্ষ্মীপুর-১ আসনে সাহাদাত হোসেন সেলিম, ময়মনসিংহ-১০ আসনে সৈয়দ মাহবুব মোর্শেদ।

খেলাফত মজলিশ: হবিগঞ্জ-৪ আসনে আহমেদ আবদুল কাদের ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে মুফতি মুনির হোসেন।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম: সুনামগঞ্জ-৩ আসনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামীর শাহিনুর. পাশা, হবিগঞ্জ-২ আসনে আবদুল বাসিদ আজাদ, যশোর-৫ আসনে মুফতি মোহাম্মদ ওয়াক্কাস।

জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর):  গাইবান্ধা-৩ আসনে টিআই ফজলে রাব্বী, কুষ্টিয়া-২ আসনে আহসান হাবিব লিংকন।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই