সোমবার, ১৭-ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন
  • খেলা
  • »
  • সাকিবের জন্য ভক্তদের মিলাদ, আপ্লুত স্ত্রী 

সাকিবের জন্য ভক্তদের মিলাদ, আপ্লুত স্ত্রী 

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ১২ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৫৫ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : বাঁহাতের কনিষ্ঠ আঙুলে ইনজুরিতে ভুগছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। চিকিৎসার জন্য বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে অবস্থান করছেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এদিকে তার ভক্তরা দেশের বিভিন্ন মসজিদে তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করে দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করেছেন, যা দেখে আবেগে আপ্লুত হয়ে নিজের ফেসবুক পেইজে একটি পোস্ট করেছেন তার স্ত্রী শিশির।

সাকিবের আঙুলের যে অবস্থা তাতে কমপক্ষে তিন মাস লাগবে তার আবার ক্রিকেটে ফিরতে। যদি তাই হয় তাহলে ২০১৯ সালের জানুয়ারির ৫ তারিখ থেকে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দিয়েই ফের ক্রিকেটে ফিরতে পারেন তিনি।

এদিকে চিকিৎসার জন্য সাকিব যখন অস্ট্রেলিয়াতে অবস্থান করছেন, তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেই পোস্টে তিনি জানিয়েছেন, সাকিবের কিছু ভক্ত তার দ্রুত সুস্থতার নিমিত্তে দেশের বেশকিছু মসজিদে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করেছেন। 

সাকিবের ভক্তদের আয়োজিত মিলাদ ও দোয়ার ছবি নিজের ফেসবুক পেইজে পোস্ট করেছেন শিশির‘এটা প্রকাশ করার মতো ভাষা আমার জানা নেই। এই মানুষগুলো সাকিব আল হাসানের দ্রুত আরোগ্যের জন্য মিলাদ এবং দোয়ার আয়োজন করেছে। আমি জানতে পেরেছি তারা সবাই সাকিবের ভক্ত, যা আমাকে অবাক করে দিয়েছে। এই দোয়া ও মিলাদের আয়োজন দেশের ১০টি মসজিদে করা হয়েছে। পরম করুণাময় আল্লাহ তাকে (সাকিব) আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। আলহামদুলিল্লাহ্, সে খুব দ্রুত চোট থেকে সেরে উঠছে। মহাপরাক্রমশালী আল্লাহ্, আমাদের প্রতি দয়ালু হয়েছেন।'

বছরের শুরুতে দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাঁহাতের আঙুলে আঘাত পান সাকিব। সেই চোট নিয়েই খেলেছেন একাধিক সিরিজ ও এশিয়া কাপ। কিন্তু এশিয়া কাপের দুই ম্যাচ বাকী থাকতেই ব্যাথা সইতে না পেরে দেশে ফেরেন। আঙুলে সংক্রমণ ধরা পরায় পরবর্তীতে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে দুই দফায় পুঁজ বের করা হয় তার আঙুল থেকে।

৫ অক্টোবর মেলবোর্নে যান সংক্রমণের চিকিৎসা করাতে। সেখানেই হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে রিপোর্ট ভালো পাওয়া গেলেও চিকিৎসক জানান, বাঁ হাতের কড়ে আঙুলের অস্ত্রোপচার আগামী অন্তত ছয় মাসের মধ্যে করা সম্ভব নয়। তবে সংক্রমণ সেরে খেলতে পারবেন। তবে সে সময় ব্যথা অনুভব হলে অস্ত্রোপচার করাতে হবে এই অলরাউন্ডারকে।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই